লজ্জায় ডুবে যাই বছর পাঁচেক আগে হুজুরের কক্ষে একদিন ঢুকে!

১৩ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:২৭ pm

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক:

‘লজ্জায় ডুবে যাই বছর পাঁচেক আগে হুজুরের কক্ষে একদিন ঢুকে। এক ছাত্রীর সঙ্গে তাকে অশালীন অবস্থায় দেখে ভয় পেয়ে যাই। দৌড়ে কক্ষ থেকে বেরিয়ে আসি।

ভাবতে থাকি, ছোট চাকরি করি। হুজুরকে ওই অবস্থায় দেখে ফেলায় হয়তো কোনো অজুহাতে চাকরি খেয়ে ফেলবেন। পরে অবশ্য আমার চাকরি তিনি খাননি।

তবে চাকরি খাওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন ঘটনা প্রকাশ করলে। এরপর থেকে ছোটখাটো ভুলত্রুটি হলেই শাসাতেন। নাইট গার্ডের চাকরি করলেও দিনেও কাজ করাতেন তিনি। তখন বুঝতাম, এটা হয়তো আমার দেখে ফেলার শাস্তি।’

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার নাইট গার্ড মো. মোস্তফা তার তিক্ত অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেন শুক্রবার এভাবেই। এই মাদ্রাসার কুখ্যাত অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার একান্ত বিশেষ সহকারী নুরুল আমিনের বক্তব্যেও মিলেছে মোস্তফার তথ্যের সত্যতা।

অনুসন্ধানেও বেরিয়ে আসে, শৈশব থেকেই নারীদের সঙ্গে কুরুচিপূর্ণ আচরণ করে আসছেন অধ্যক্ষ। একাধিকবার অনৈতিক সম্পর্কে জড়াতে গিয়ে তিনি এলাকাবাসীর পিটুনি খান ফেনী সদরের গোবিন্দপুর ছিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্র থাকাকালেও।

নাইট গার্ড মোস্তফা একই ধরনের আরও অন্তত তিনটি ঘটনার সাক্ষী। তার বক্তব্যে উঠে আসে অধ্যক্ষ সিরাজের রুমে ডাক পড়লেই বিপদের গন্ধ পেত ছাত্রীরা।

নিপীড়নের শিকার অধিকাংশ ছাত্রী ভয়ে তা প্রকাশ করত না। কেউ কেউ পরিবার ও সহপাঠীদের জানালেও প্রভাবশালীদের মাধ্যমে তা ধামাচাপা দিয়ে ফেলতেন সিরাজ।

আবার অধ্যক্ষের পোষা একটি বাহিনী বারবার সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দেখাত। নাইট গার্ড মোস্তফা ২১ বছর ধরে সোনাগাজী মাদ্রাসায় চাকরি করেন।

চোখের সামনে অনেক কিছু দেখেছেন তিনি। পাঁচ-ছয় বছর আগের একটি ঘটনা তিনি তুলে ধরেন এভাবে- ‘হঠাৎ একদিন দুপুরে হুজুরের রুমে যাই। মাদ্রাসা তখন খোলা ছিল। কক্ষে ঢুকেই দেখি, এক ছাত্রীর সঙ্গে অশালীন আচরণ করছেন তিনি।

আমাকে দেখেই হুজুর আলমারির ভেতরে কিছু একটা খোঁজার ভান করেন। এমন দৃশ্য দেখার পর ভয়ে আমার হাত-পা কাঁপছিল।’

মোস্তফা আরও জানান, পরের দিন অধ্যক্ষ তাকে রুমে ডেকে পাঠান। এরপর বলেন, ‘জলে বাস করতেছিস। কুমিরের সঙ্গে লড়বি কি-না বুঝে নিস। পাথরের সঙ্গে মাথা ঠোকালে পাথরের কোনো ক্ষতি হয় না। বরং যে মাথায় ঠোকায় তার রক্ত ঝরে।’

সিরাজের এই কথা শোনার পর ভয় পেয়ে যান মোস্তফা। তিনি বলেন, ‘বাইরের কাউকে জানানোর কথা চিন্তাও করিনি। আবার ভেবেছি, যার সঙ্গে ঘটনা ঘটেছে তিনি অভিযোগ না করলে আর আমি বিষয়টি জানালে বিপদে পড়ে যাব।

যদি ওই ছাত্রী পরে অস্বীকার করে। আবার হুজুরের বিষয়টি প্রমাণ করতে হলেও তো সাক্ষী লাগবে। সেটা কোথায় পাব আমি।’

ওই মাদ্রাসার নাইট গার্ড আরও জনান, কয়েক বছর আগে হঠাৎ হুজুর বললেন তার রুমে সাপের বাচ্চা ঢুকে পড়েছে। তখন তার রুম ছিল মাদ্রাসার নিচতলায়। পাশেই ছিল পুকুর।

হুজুর সবার কাছে প্রচার করেন, পুকুর থেকে সাপ এসে তার চেয়ারের নিচে বসে ছিল। অল্পের জন্য সাপের কামড় থেকে রক্ষা পান তিনি। এটা প্রচার করার পরপরই অধ্যক্ষ জানান, তার কক্ষ দোতলায় নিতে হবে।

আসলে তিনি নিরিবিলি জায়গা খুঁজছিলেন তার পাপ কাজ নির্বিঘ্নে চালিয়ে যেতে। সাপের কথা বলে সেটা পাকাপোক্ত করেন এবং মাদ্রাসাতেই গড়ে তলেন খাস কামরা।

যেদিন তার কক্ষ দোতলায় শিফট হয় সেদিন নতুন রুম দেখতে গিয়ে আবারও বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েন। আরও এক ছাত্রীর সঙ্গে অশালীনভাবে তাকে দেখতে পান মোস্তফা। তাড়াহুড়ো করে বাইরে চলে আসেন তিনি।

মোস্তফা জানান, নুসরাত জাহান রাফির ঘটনার এক মাস আগেই মাদ্রাসায় একই ধরনের আরেকটি ঘটনা ঘটে। ওই ছাত্রীকে হুজুর ডেকে নিয়ে কুপ্রস্তাব দেন।

যে ছাত্রীর সঙ্গে ঘটনাটি ঘটেছে সে নুসরাতের বান্ধবী। একই ক্লাসে তারা পড়ে। ওই ছাত্রী রাজি হয়নি হুজুরের প্রস্তাবে। বিষয়টি ওই ছাত্রী বাসায় গিয়ে পরিবারের সদস্যদের জানায়।

ওই ছাত্রীর বাবা সোনাগাজীতে একটি দাখিল মাদ্রাসার সুপার। পরিবারের পক্ষ থেকে তারা গভর্নিংবডির সদস্য ও মাদ্রাসা-সংশ্নিষ্ট অন্যদের কাছেও অভিযোগ দেন। তবে পরে বিষয়টি আর এগোয়নি।

মোস্তফা বলেন,‘অধ্যক্ষ সিরাজ দীর্ঘদিন ধরেই ভয়ঙ্কর পাপ করে আসছিলেন। নুসরাত সাহস করে রুখে দাঁড়িয়েছেন। জীবন দিয়ে নুসরাত অনেক মেয়ের জীবন ও ইজ্জত বাঁচিয়েছেন।

তবে খুশি হতাম নুসরাত বেঁচে থাকলে। এখন হুজুর ধরা পড়ায় খুশি হচ্ছি। এখন একটাই দাবি, যেন তার উপযুক্ত বিচার হয়। আবার ভয় লাগে, ছাড়া পাওয়ার পর এসে যদি কোনো ক্ষতি করেন।

তার হাতে অনেক প্রভাবশালী লোকজন রয়েছেন। হুজুরের শ্যালক রাজু আছে। সে অনেক প্রভাবশালী। হুজুরের অনুগত নুর উদ্দিন, শাহাদাত ও মাকসুদ রয়েছে।’

নুসরাতের ওপর বর্বর হামলার সময়কার বর্ণনা দিয়েছেন মোস্তফা। তিনি বলেন, ৬ এপ্রিল নুসরাতের ঘটনার সময় মাদ্রাসার প্রধান ফটকে দুই পুলিশ সদস্যের সঙ্গে নিরাপত্তা ডিউটি ছিল তার।

ওই দিন সকাল ৭টা থেকে সোয়া ৯টা পর্যন্ত মাদ্রাসার ক্লাস চলছিল। ক্লাস শেষে আলিম পরীক্ষার্থীদের তল্লাশি করে মাদ্রাসায় ঢোকানো হচ্ছিল। মাদ্রাসা গেটে মেয়েদের তল্লাশির জন্য ছিলেন মাদ্রাসার কর্মচারী বেবী রানী।

মাদ্রাসা গেটে পৌনে ১০টার দিকে এক ছেলে এসে জানান, তার বোন অসুস্থ। কেন্দ্রে ঢুকতে চান তিনি। তখন তাকে হল সুপারের কক্ষে নেওয়া হয়। সুপার তাকে জানান, তার বোনের কোনো সমস্যা হলে তারা দেখভাল করবেন। এরপর ওই ছেলেটি চলে যান। ১০টা বাজার কয়েক মিনিট আগে হঠাৎ এক মেয়ের আর্তনাদ কানে ভেসে আসে।

দৌড়ে গিয়ে দেখেন ‘আউ আউ’ শব্দে এক মেয়ে (নুসরাত) কাঁদছেন। তার সারা শরীরে আগুন। তাৎক্ষণিকভাবে মোস্তফা পাপোশ দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন পুলিশ সদস্যদের নিয়ে।

বদনা দিয়ে পানি ঢালতে থাকেন তার শরীরে। কিছু সময় পর মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর চিনতে পারেন, অধ্যক্ষ সিরাজের বিরুদ্ধে যে মেয়েটি অভিযোগ এনেছিলেন সেই তরুণীই হামলার শিকার।

অধ্যক্ষ সিরাজের একান্ত বিশেষ সহকারী নুরুল আমিন জানান, ২৭ মার্চ নুসরাতকে অধ্যক্ষ তার কক্ষে ডেকে আনার নির্দেশ দেন। নুরুল আমিন অধ্যক্ষের এই তথ্য নুসরাতকে জানান।

মিনিট দশেক পরে চার বান্ধবীসহ নুসরাত অধ্যক্ষের কক্ষের সামনে আসেন। এরপর নুসরাত একাই অধ্যক্ষের রুমে ঢোকেন। তার বান্ধবীরা দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

নুসরাত রুমে ঢোকার মিনিট পাঁচেক পর কলিংবেল বাজান অধ্যক্ষ। এরপর রুমে ঢুকে নুরুল আমিন দেখেন, নুসরাত মাথা টেবিলের সঙ্গে লাগিয়ে বসে আছেন। নুরুল আমিনকে অধ্যক্ষ নির্দেশ দেন- নুসরাতের কী হয়েছে তা জানতে। কয়েকবার জানতে চাইলেও জবাব না দিয়ে দৌড়ে কক্ষ থেকে বেরিয়ে যান নুসরাত। পরে নুসরাত বিষয়টি তার পরিবারকে জানান। ওই দিন মাদ্রাসায় এসে নুসরাতের ভাই ও মা তাকে বাসায় নিয়ে যান।

নুরুল আমিন আরও জানান, ‘অধ্যক্ষের অপকর্মের কথা আগে থেকেই জানতাম। এক ছাত্রীর গায়ে হাত দিয়েছেন তিনি নুসরাতের ঘটনার কিছুদিন আগেই। তাই একাকী তার রুমে ঢুকতে নিষেধ করতাম কোনো ছাত্রীকে ডাকা হলে। তবে কতক্ষণ আর পাহারা দিয়ে রাখা যায়।

ক্ষমতার দাপট অনেক কিছু ম্যানেজ করে নিতেন দেখিয়ে অধ্যক্ষ। ৩৭ বছর সোনাগাজী মাদ্রাসায় চাকরি করছি। কতকিছু চোখের সামনে দেখেছি। জীবনের ভয়ে আর পেটের চিন্তায় বুক ফাটলেও মুখ ফুটে অনেক কথা বলতে পারিনি।’

সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আরবি বিভাগের প্রভাষক আবুল কাশেম জানান, কয়েক বারই অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। যারা তার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছে তারাই রোষানলে পড়েছে। হয়রানি ও চাকরি যাওয়ার ভয়ে সবাই চুপ করে থাকত।

ফেনী সদর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শহীদ খন্দকার জানান, ১৯৮৯ সালে সিরাজ গোবিন্দপুর ছিদ্দিকীয়া মাদ্রাসার পড়ার সময় সেখানে একটি বাড়িতে লজিং ছিলেন। ওই এলাকার বাসিন্দা শহীদ। তখন তিনি কলেজে পড়তেন। ওই সময় সিরাজ মেয়েদের কুপ্রস্তাব দিলে এলাকাছাড়া করা হয় তাকে বেদম মারধর করে।

সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ আবদুল হালিম বলেন, তিনি ২০১২-১৮ সাল পর্যন্ত সোনাগাজী ফাজিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটিতে ছিলেন।

ওই সময় অভিযোগ উঠেছিল অধ্যক্ষ সিরাজুলের বিরুদ্ধে ছাত্রী নিপীড়নের। এসব ঘটনার তদন্ত আর এগোয়নি প্রভাবশালী মহলের ইন্ধনে। অধ্যক্ষের বিষয়টি এখন সামনে আসছে নুসরাত সাহস করে রুখে দাঁড়ানোয়।

সোনাগাজীর স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তাকে মাদ্রাসা থেকে বহিস্কার করা হয় কারন অধ্যক্ষ সিরাজের বিরুদ্ধে ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়নের সালামতিয়া মাদ্রাসার এক শিশুকে বলাৎকারেরও অভিযোগ উঠেছিল।

বিটিআরসি নির্দেশনায় বন্ধ হচ্ছে ২৬ লাখ সিম কার্ড
মোবাইল ফোন চার্জ হবে শুধু জুতা পরে হাঁটলেই!
উইন্ডোজ ১০ চলছে ৮০ কোটি যন্ত্রে
কুমিল্লার সকল ভিডিও খবর জানতে আমাদের চ্যানেল   সাবসক্রাইব করুন…
কুমিল্লার জাগুরঝুলিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

কুমিল্লার জাগুরঝুলিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

মহিউদ্দিন ভূইয়া: ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লা জাগুরঝুলি এলাকায় গাড়ির চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত, আহত এক। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতের রিয়াদ হোসেন আদর্শে বিস্তারিত →

টাঙ্গাইলে মহিলা আওয়ামী লীগের মানববন্ধন

টাঙ্গাইলে মহিলা আওয়ামী লীগের মানববন্ধন

শরিফুল ইসলাম, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: ফেনীর নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা ও টাঙ্গাইলে স্বামীর সামনে স্ত্রীকে গণধর্ষনের বিচারের দাবিতে মাববন্ধন করেছে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ। বিস্তারিত →

রাবিতে নুসরাত হত্যার বিচার দাবি

রাবিতে নুসরাত হত্যার বিচার দাবি

  ওয়াসিফ রিয়াদ. রাবি প্রতিনিধি: নুসরাত জাহান রাফি হত্যার বিচার দাবিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা। আজ বেলা সাড়ে ১১টায় ফজিলাতুন্নেসা হলের সামনে এ বিস্তারিত →

রাজধানীর মগবাজারে আগুন

রাজধানীর মগবাজারে আগুন

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক: রাজধানীর মগবাজার কাজী অফিসের একটি গলিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে আজ দুপুরে। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ বিস্তারিত →

পিবিআই যেকোনো সময় নুসরাতের ব্যাপারে ভালো খবর দেবে

পিবিআই যেকোনো সময় নুসরাতের ব্যাপারে ভালো খবর দেবে

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক: পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) বলেছে, তারা গ্রেপ্তার করতে পারেনি আগুনে পুড়িয়ে ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় সরাসরি জড়িত বিস্তারিত →

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

সর্বশেষ খবর

Archives

SatSunMonTueWedThuFri
  12345
20212223242526
27282930   
       
      1
       
    123
18192021222324
       
      1
16171819202122
30      
     12
       
    123
       
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
30      
     12
       
    123
25262728   
       
      1
2345678
9101112131415
3031     
      1
30      
   1234
567891011
       
Surfe.be - cheap advertising