ভারতীয় সাবমেরিন পাকিস্তানের হাতে ধরা পড়ল

৪ জুন, ২০১৯ ১০:৫৪ pm

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক:

পুলওয়ামা হামলার পর ভারতীয় নৌবাহিনী তাদের সাবমেরিনকে নজরদারি এবং প্রতিরক্ষা মিশনে ব্যবহার করেছে। তাদের প্রধান উদ্দেশ্য ছিল পাকিস্তানের নৌ স্বার্থকে টার্গেট করা এবং পাকিস্তানী নৌবাহিনীর অবাধ বিচরণে বাধা সৃষ্টি করা। তাদের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে কারণ আক্রমণাত্মক অবস্থান ধরে রাখতে পারেনি ভারত। যেটা ভারতীয় নৌবাহিনীর পানির নিচের শক্তি হওয়ার কথা ছিল, সেখাতে তাদের সাবমেরিনের সীমাবদ্ধতা উঠে এসেছে।

ভারতীয় নৌবাহিনী সাবমেরিন কালভেরি পাকিস্তানি পানিসীমায় টহল দেয়ার সময় পি৩সি ওরিয়ন বিমানের কাছে ধরা পড়ে যায়। ৪/৫ মার্চ মিডিয়ায় যে ছবিগুলো প্রকাশিত হয়েছে, সেখানে দেখা গেছে যে ভারতের স্করপিয়ন শ্রেণীর সাবমেরিন কালভেরি পাকিস্তানের পানিসীমায় প্রবেশ করেছে।

পাকিস্তানের কাছে ধরা পড়ার পর কালভেরি নিজের দেশে ফিরে যায় এবং বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, সেখানে সাবমেরিনের কমান্ডিং অফিসার ও নাবিকদের বরখাস্ত করা হয়েছে। সম্ভবত ‘শত্রুর’ হাতে ধরা পড়ার অপরাধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ হিসেবে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে একদিকে পাকিস্তানি নৌ সীমার কাছে ভারতীয় সাবমেরিনের উপস্থিতি এবং পাকিস্তানের সক্ষমতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেলো, অন্যদিকে ভারতীয় নৌবাহিনীর আভিযানিক সক্ষমতা ও তাদের সাবমেরিন মোতায়েনের ব্যাপারে নীতিগত স্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন তৈরি হলো।

পাকিস্তানি সাবমেরিন-বিরোধী বিমানের কাছে ভারতীয় সাবমেরিনের ধরা পড়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বরেও পাকিস্তানি পানিসীমার কাছে ধরা পড়েছিল ভারতের টাইপ ২০৯ সাবমেরিন।

এই ভাবে সাবমেরিন চিহ্নিত হওয়ার কারণে সঙ্কটের স্থায়িত্ব কমে গেছে এবং সে কারণে ভারত ও পাকিস্তান একে অন্যের বিরুদ্ধে হামলা করেনি। রবার্ট পাওয়েল অ্যামেরিকান পলিটিক্যাল সায়েন্স রিভিউতে ১৯৮৯ সালে প্রকাশিত তার ‘ক্রাইসিস স্ট্যাবিলিটি ইন দ্য নিউক্লিয়ার এজ’ নিবন্ধে লিখেছেন যে, যখন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে হামলার আয়োজন বাড়ে, তখন সঙ্কটের স্থিতিশীলতা হ্রাস পায় এবং যুদ্ধের আশঙ্কা বাড়ে। পাকিস্তানের উপকূলে ভারতীয় সাবমেরিনের উপস্থিতি ধরা পড়ার অর্থ হলো পাকিস্তানের নৌ স্বার্থের উপর আঘাত হানার পরিকল্পনা করেছিল ভারত, যেটা একটা সঙ্ঘাতের সূচনা করতে পারতো।

এরকম পরিস্থিতিতে পাকিস্তান ভারতীয় সাবমেরিনকে চিহ্নিত করে সেটাকে অকেজো করার চেষ্টা করবে। যে উদ্দেশ্যেই সাবমেরিন মোতায়েন করা হোক না কেন, সাগরের পানিসীমা যাতে স্বাধীনভাবে ব্যবহার করা যায়, সেটা নিশ্চিত করার চেষ্টা করবে তারা। এই ‘অ্যাকশান-রিয়্যাকশান’ ধারা অব্যাহতভাবে চলতে থাকলে সেটা দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধের কারণ হতে পারে। এই পরিপ্রেক্ষিতে ভারতকে অবশ্যই কিছু বিষয় পুনর্বিবেচনা করতে হবে :

১. ‘ডিটারেন্স থ্রু ডিনায়াল’ নীতির জন্য কনভেনশনাল সাবমেরিনের ব্যবহার; এবং

২. ‘সাগরে প্রতিরোধ ব্যবস্থা অব্যাহত’ রাখার কৌশল

ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবমেরিনে এ পর্যন্ত বেশ কতগুলো বড় ও ছোট দুর্ঘটনা ঘটেছে। যে সব সাবমেরিনে দুর্ঘটনা ঘটেছে, সেগুলো হলো আইএনএস সিন্ধুঘোষ, সিন্ধুরক্ষক, শঙ্কুশ, সিন্ধুরত্ন এবং অরিহন্ত।

২০১৬ ও ২০১৯ সালে পাকিস্তানের কাছে ভারতীয় সাবমেরিনের উপস্থিতি ধরা পড়ার কারণ হলো এই সাবমেরিনগুলোর প্রযুক্তিগত সীমাবদ্ধতা, যেখানে এই সাবমেরিনগুলো অব্যাহতভাবে সাগর তলে কাজ করতে পারে না। দুর্বল রক্ষণাবেক্ষণ ব্যবস্থার সাথে যুক্ত হয়েছে ত্রুটিপূর্ণ ‘ডিটারেন্স থ্রু ডিনায়াল’ নীতি, যেটার কারণে ভারতের কনভেনশনাল সাবমেরিনগুলোর আভিযানিক কার্যকারিতা ও নজরদারির সক্ষমতা যথেষ্ট জটিল হয়ে গেছে। সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর

কুমিল্লায় বিজিবির অভিযানে ১০ হাজার পিছ ইয়াবাসহ আটক ৩

কুমিল্লায় বিজিবির অভিযানে ১০ হাজার পিছ ইয়াবাসহ আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লা ৬০ বিজিবি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলার বুড়িচং উপজেলার ভারতীয় সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯ হাজার ৭শত ৮০ পিছ ভারতীয় ইয়াবা বিস্তারিত →

মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত আমাদের পাশে ছিল: প্রধানমন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত আমাদের পাশে ছিল: প্রধানমন্ত্রী

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত আমাদের পাশে ছিল। এই কলকাতাই ১ কোটি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছিল, তা আমরা কোনোদিন ভুলিনি।   বিস্তারিত →

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য নিহত, এএসআইসহ তিন জন আহত

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য নিহত, এএসআইসহ তিন জন আহত

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লার সদর দক্ষিন থানার সুয়াগাজীতে পুলিশের একটি মাইক্রোবাসের সাথে ট্রাকের সংঘর্ষে এক পুলিশ কন্সট্রেবল নিহত ও এএসআইসহ ৩ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯নভেম্বর) বিস্তারিত →

সৌদি আরব মক্কায় ২০১৫ সালে ক্রেন দুর্ঘটনায় আহত বাংলাদেশী কাইয়ুমকে চেক প্রদান

সৌদি আরব মক্কায় ২০১৫ সালে ক্রেন দুর্ঘটনায় আহত বাংলাদেশী কাইয়ুমকে চেক প্রদান

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়, সৌদি আরব প্রতিনিধি: সৌদি আরবের মক্কার মসজিদ আল হারামের নির্মাণ কাজের সময় ক্রেন দুর্ঘটনায় আহত বাংলাদেশী মোহাম্মদ আব্দুল নূর আব্দুল কাইয়ুমকে বিস্তারিত →

বাড়িতে আর বেঁচে ফিরতে পারলেন না ফারজানা

বাড়িতে আর বেঁচে ফিরতে পারলেন না ফারজানা

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক: কত জীবনপ্রদীপ অকালেই ঝরে যায়। ফারজানাও এমনই এক হতভাগ্য মেয়ে। পরিবারের সবাই মিলে চাঁদপুর থেকে সিলেটে গিয়েছিলেন খালাতো বোনের বিয়েতে। ফিরছিলেন উদয়ন বিস্তারিত →

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

সর্বশেষ খবর

Archives

SatSunMonTueWedThuFri
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
       
    123
18192021222324
       
      1
16171819202122
30      
     12
       
    123
       
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
30      
     12
       
    123
25262728   
       
      1
2345678
9101112131415
3031     
      1
30      
   1234
567891011
       
Surfe.be - cheap advertising