জরাজিন্ন ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স জনবল সংকট নিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসকরা

৮ সেপ্টেম্বার, ২০১৯ ০৮:২৯ pm

তাওহীদ হোসেন মিঠু:

৫০ শর্য্য বিশিষ্ট কুমিল্লা ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘ বছর যাবৎ জরাজিন্ন অবস্থায় স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসকরা। মেডিকেল অফিসার ও কনসালটেন্ট ডাক্তারসহ ১০ টি পদে ও ৪০ টিরও বেশি জনবল সংকট নিয়ে ২ লক্ষ ৩০ হাজার জনগনকে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করছেন দায়িত্বরত চিকিৎসকরা। জনগনকে সু-স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করতে পড়তে হচ্ছে বিভিন্ন ভোগান্তিতে। যান্ত্রিক ত্রুটি বা সংকটের কারণে পরিপূর্ণ স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করতে পারচ্ছেন না ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা।

 

কর্তব্যরত চিকিৎসকরা বলছেন, জনবল সংকটের কারনে ব্রাহ্মণপাড়ায় বসবাসরত প্রায় আড়াই লক্ষ জনগণের চিকিৎসাসেবা দিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকদের পড়তে হচ্ছে বিভিন্ন ভোগান্তিতে। তারপরও সিমিত জনবল নিয়ে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনগণকে স্বাস্থ্য সেব দিতে সাধ্যমত চেষ্টা করছেন চিকিৎসকরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার, কনসালটেন্ট, স্বাস্থ্য সহকারী, সিনিয়র স্টাফ নার্স, এমএলএসএস, ফার্মাসীষ্ট, নাইট গার্ড, পরিচ্ছন্নতা কর্মী ও আয়য়া পদে ৪০ জনেরও বেশি জনবল সংকট রয়েছে। এছাড়াও এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন ধরে অকেজু হয়ে পড়ে আছে এম্বুলেন্স, এক্স-রে মেশিন, জেনারেটর।

 

তাছাড়াও পানি সংকট, ল্যাব সমস্যাসহ চিকিৎসদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ যান্ত্রাংশ সংকট। এইসব সংকট নিয়ে ব্রাহ্মণপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি জনগণকে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়িত। অন্যদিকে চিকিৎসদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ যান্ত্রাংশ সংকট রয়েছে। যার কারনে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা আশানুরূপ চিকিৎসা দিতে পারছেন না।

 

ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রোগীরা বলেন, ডাক্তাররা ভাল সেবা দিচ্ছেন কিন্তু হাসপাতালে অনেক সংকটের কারণে আমাদের বাহির থেকে পরিক্ষা-নিরিক্ষা করতে হয়। হাসপাতালে কোন পরিক্ষা নিরিক্ষা করা যায় না। আর বিদ্যুৎ সমস্যার কারণে রোগীদের অনেক কষ্ট করে থাকতে হয়।

 

ডাঃ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, আমাদের যা আছে তা দিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দেওয়ার চেষ্টা করতেছি। এইখানে ঔষধের কোন প্রকার সমস্যা নেই। ঔষুধ আমাদের যথেষ্ট পরিমাণ সাপ্লাই আছে। অন্যান্য যে সমস্যা গুলোর মধ্যে দিয়েও আমরা স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছি। আমাদের এইসব সমস্যা গুলো সমাধান হলে আমরা আরো ভাল স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করতে পারব।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কনসালটেন্ট ডাঃ তাছলিমা বেগম জানান, গর্ভবতী মহিলাদের কিছু পরিক্ষা-নিরিক্ষা করতে হয় তার মধ্যে নূন্যতম আল্ট্রসনোগ্রাম। আমি যতদিন কনসালটেন্ট হিসেবে দায়িত্বে আছি গর্ভবতী মহিলাদের জন্য যে পরিক্ষা করতে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হয় আল্ট্রসনোগ্রাম মেশিন নাই এবং সনোলজিস্ট সাপ্লাই নাই। যার কারণে রোগী এখানে আসছে ঠিকই কিন্তু বাহির থেকে পরীক্ষা গুলো করতে হচ্ছে। স্বাস্থ্য সেবা দিলেও রোগীরা বাহির থেকে পরিক্ষা-নিরিক্ষা গুলো করতে বাধ্য হচ্ছে।

 

তিনি আরো জানান, আমার এইখানে একটি এম্বুলেন্স নেই অকেজু হয়ে পড়ে আছে। একটি ডেলিভারী রোগীর যে কোন সময় সিজারের প্রয়োজন লাগতে পারে। যেহেতু আমার এইখানে সিজার সেকশন চালু নেই। আমাদের এইখানে অনেক কারণ রয়েছে তারমধ্যে মেশিন পত্র কম। মেশিন পত্র কিছু থাকতে থাকতে অকেজু হয়ে গেছে। সেক্ষেত্রে একটা রোগীকে ব্রাহ্মণপাড়া নরমাল ডেলিভারীর জন্য চেষ্টা করছিলাম এখন রোগীটার সিজার লাগবে। তখন আমার রোগীটাকে সদর হাসপাতাল অথবা কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাতে হবে। ঐ পরিমাণ পেইন অবস্থায় এম্বুলেন্স ছাড়া সিএনজি দিয়ে যাওয়াটা উচিত না, সম্ভবও না। একজন সরকারি ডাক্তার হিসেবে আমার উপরে দায়িত্ব রোগীকে সর্বোচ্চ সেবা দেওয়া। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যা আছে তা দিয়ে আমি রোগীদেরকে সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ভারপ্রাপ্ত ইউ.এইচ.এফ.পি.ও কামরুল হাসান সোহেল জানান, আমাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মনোরম একটি পরিবেশে অবস্থিত। কিন্তু আমাদের জনবল সংকট সবচাইতে বেশি। বর্তমানে এই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার ও কনসালটেন্ট ডাক্তারসহ ১০ পদে ৪০ টিরও বেশি জনবল শূণ্য রয়েছে। এরমধ্যে মেডিকেল অফিসার ১০ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ৬ জন, ৪ জনের পদ শূণ্য। সনসালটেন্ট ডাক্তার ৫ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ৩ জন, ২ জনের পদ শূণ্য। স্বাস্থ্য সহকারী (মাঠকর্মী) ৩০ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ১১ জন, ১৯ জনের পদ শূণ্য। সিনিয়র স্টাফ নার্স ২০ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন ১৬ জন, ৪ জনের পদ শূণ্য। এমএলএসএস ৫ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ১ জন, ৪ জনের পদ শূণ্য। পরিচ্ছন্নতাকর্মী ৫ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ১ জন, ৪ জনের পদ শূন্য। আয়য়া ৪ জন থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ২ জন, ২ জনের পদ শূণ্য।

 

এছাড়াও ফার্মাসিষ্ট এর ১টি পদ শূণ্য এবং নাইট গার্ড এর ২ টি পদ শূণ্য রয়েছে। আমাদের এই অল্প জনবল নিয়ে আমাদের চাহিদায় স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছি। আমাদের স্বাস্থ্য একটি এম্বুলেন্স থাকলেও সেটি দীর্ঘ বছর ধরে অকেজু হয়ে পড়ে আছে। অকেজু থাকার কারণে যেকোন রোগীকে ব্রাহ্মণপাড়া থেকে কুমিল্লায় নিয়ে যেতে অনেক কষ্ট হয়।

 

তিনি আরো জানান, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মী না থাকার কারণে আমরা নিজেদের উদ্যোগে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মী রেখে হাসপাতাল ও হাসপাতালের আঙ্গিনা পরিষ্কার-পরিচচ্ছন্ন রাখচ্ছি। ৪-৫ বছর ধরে আমাদের এক্সরে মেশিন অকেজু হয়ে পড়ে আছে। যে কারণে রোগীদের প্রয়োজন হলেও তারা এইখানে এক্সরে করতে পারচ্ছে না। আমাদের এইখানে রক্ত পরিক্ষা হয় কিন্তু আধুনিক এনালাইজার মেশিন না থাকার কারণে সব ধরণে পরিক্ষা করানো যায় না।

 

উর্ধতন কতৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়ে তিনি বলেন যে জনবল সংকটগুলো নিরসন করলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আরো ভাল স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করতে পারবেন বলে আশ্বাস জানান।

 

কুমিল্লা সিভিল সার্জন মুজিবর রহমান জানান, কুমিল্লা জেলায় স্বাস্থ্য খাতে জনবল সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে। তারমধ্যে ব্রাহ্মণপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অর্ন্তভুক্ত রয়েছে। কুমিল্লা ১৬টি উপজেলায় ৩য়, ৪র্থ শ্রেনীর ১ হাজারের উর্ধে অধিক কর্মচারীর পদ শূণ্য রয়েছে। তারপরও আমরা চিকিৎসা সেবা নিরচ্ছন্ন ভাবে করতে পারি আমরা সে প্রচেষ্ঠা অব্যহত রেখেছি।

 

তিনি আরো জানান, আমাদের ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনবল সংকট সবচাইতে বেশি। ল্যাবরেটরি টেকনেশিয়ানের কারণে ল্যাবরেটরি চালু করতে পারছি না। এক্সরে টেকনেশিয়ানের কারণে এক্সরে মেশিন চালু করতে পারচ্ছি না। মেশিন আনা হলেও জনবল ছাড়া এই গুলোর ত্বত্তাবধান সম্ভব নয়।

 

তিনি জানান, ২০১০ সালের পর আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগে নিয়োগ বন্ধ রয়েছে। যে কারণে আমাদের এই জনবল সংকটগুলো রয়েছে। কিছুদিন আগে জনবল সংকট নিয়োগের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমরা আশ্বাবাদী যে আমরা এই নিয়োগ গুলো দিতে পারব। আমাদের খুব দ্রুত জনবল সংকট সমাধান হবে। জনবল সংকট সমাধান হলে সকল হাসপাতাল পূর্ণাঙ্গ হাপাতাল হবে।

রাণীনগরে রতনডারি খালের ওপর তিন বছরে দাঁড়িয়ে আছে দুই খাম্বা!

রাণীনগরে রতনডারি খালের ওপর তিন বছরে দাঁড়িয়ে আছে দুই খাম্বা!

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগরে তিন বছরেও ব্রিজের নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি। এলাকার জনসাধারণ ও শিক্ষার্থীদের চলাচলের সুবিধার্থে বরাদ্দ সাপেক্ষে ব্রিজ নির্মাণের প্রাথমিক কাজ বিস্তারিত →

কুবিতে আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতা শুরু

কুবিতে আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতা শুরু

মাহমুদুল হাসান, কুবি প্রতিনিধি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে।   মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিস্তারিত →

জমকালো আয়োজনে কুবিতে বাংলা বিভাগের ‘বাংলা উৎসব ১৪২৬’ অনুষ্ঠিত

জমকালো আয়োজনে কুবিতে বাংলা বিভাগের ‘বাংলা উৎসব ১৪২৬’ অনুষ্ঠিত

মাহমুদুল হাসান, কুবি প্রতিনিধি: “সত্য-সুন্দর চর্চায় আমরা নির্ভীক, উৎসবের আলোয় রাঙাই দিক-বিদিক” শীর্ষক স্লোগান নিয়ে বর্ণাঢ্য ও জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের বিস্তারিত →

রাণীনগরে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক-২

রাণীনগরে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক-২

কাজী আনিছুর রহমান, রাণীনগর প্রতিনিধি: রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার পশ্চিম বালুভরা গ্রামে অভিযান চালিয়ে ২হাজার ৫শ’৬০ পিস ইয়াবাসহ দু’জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক বিস্তারিত →

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় মাদকের বিরুদ্ধে ছাত্র অভিভাক সমাবেশ

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় মাদকের বিরুদ্ধে ছাত্র অভিভাক সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লা জেলার সীমান্তবর্তী ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বাগড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সোমবার দুপুরে মাদক ও ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে সচেতনতা মূলক ছাত্র অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাগড়া বিস্তারিত →

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

সর্বশেষ খবর

Archives

SatSunMonTueWedThuFri
14151617181920
21222324252627
282930    
       
      1
       
    123
18192021222324
       
      1
16171819202122
30      
     12
       
    123
       
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
30      
     12
       
    123
25262728   
       
      1
2345678
9101112131415
3031     
      1
30      
   1234
567891011
       
Surfe.be - cheap advertising