কুমিল্লায় দু’হাজার গাছের চারা বিতরণ করলেন প্রকৃতি প্রেমী পুলিশ সুপার শাখাওয়াত

১১ জুলাই, ২০২০ ০১:৩৬ pm

মাহফুজ নান্টু:

কারো হাতে তুলে দিলেন ফলজ গাছের চারা। কারো হাতে তুলে দিলেন বনজ ও ঔষধি গাছের চারা। এভাবে অন্তত দু’হাজার গাছের চারা তুলে দিলেন। অর্পিত দায়িত্ব পালনে বদ্ধ পরিকর তিনি। তবে গাছ ভালোবাসেন। প্রকৃতির সান্নিধ্য ভালোবাসেন। তাই নিরবে নিবৃত্তে বৃক্ষরোপন আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রচার বিমুখ মানুষটি গত পনের বছর ধরে নিজের হাতে গাছের চারা রোপন করে আসছেন। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝে গাছের চারা বিতরন করেন।

 

তারই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার (১০ জুলাই) বেলা ১১ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা সৈয়দপুর এলাকায় গাছের চারা বিতরন করলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন। কুমিল্লা জেলা পুলিশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের দায়িত্ব পালন করেছেন। এখন পদোন্নতি পেয়েছেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর পুলিশ সুপার হিসেবে চলতি সপ্তাহে ব্রাহ্মনবাড়িয়ায় যোগদান করবেন।

 

শুক্রবার সকালে গাছের চারা বিতরনে আগে নিজেই নার্সারিতে যান। নিজের হাতে বেছে বেছে একত্রে করেন ফলজ-বনজ ও ঔষধি গাছের চারা। পরে আগত সবার হাতে তুলে দেন গাছের চারাগুলো। এছাড়াও দূরবর্তী যারা আছেন তাদের জন্য পিকআপ ভ্যান করে গাছের চারা পাঠিয়ে দেন।

 

কুমিল্লায় দু’হাজার গাছের চারা বিতরণ করলেন প্রকৃতি প্রেমী পুলিশ সুপার শাখাওয়াত

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে রোপনের জন্য বিতরনকৃত চারা গ্রহণ করেন ছাত্রলীগ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ। গাছের চারা পেয়ে ইলিয়াস হোসেন সবুজ এক অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন, পদোন্নতি পেয়ে পুলিশ সুপার হয়েছেন মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন। কুমিল্লায় তার কর্মজীবনে একনিষ্ঠতা দেখেছি। তিনি আজ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে রোপণ করার জন্য আমার হাতে ফলজ-বনজ ও ঔষধি গাছের চারা তুলে দেন। নিঃসন্দেহে একটি মহৎ কাজ। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেনের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।

 

গাছের চারা পেয়ে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কুমিল্লা দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপি। তিনি বলেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত ভাই এক কর্মনিষ্ঠ মানুষ। তিনি প্রকৃতি ভালোবাসেন। দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি সবুজ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। আজ তিনি আমাদের হাতে গাছের চারা তুলে দেন। আমরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ।

 

গাছের চারা বিতরন শেষে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন বলেন, প্রকৃতির বিপর্যয় রোধ করতে হলে সবচেয়ে সহজ সাশ্রয়ী ও কার্যকরি উদ্যেগ হলো ব্যক্তি উদ্যেগে বৃক্ষরোপন করা। এ কাজটা আমার ভালো লাগে। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন সময় থেকে গাছ লাগাই। এ পর্যন্ত নিজের হাতে রোপণসহ বিতরণ করেছি অন্তত কুড়ি হাজার গাছের চারা। গাছের চারা রোপনে আমার একটা লক্ষ আছে। সে লক্ষ্যেই এগিয়ে যাচ্ছি।

জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থনে আমি মুক্তি পেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী

জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থনে আমি মুক্তি পেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী

বর্তমান প্রতিদিন ডেস্ক: দেশের জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থন ছিল বলেই এক-এগারোর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ বিস্তারিত →

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কুমিল্লায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচি

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কুমিল্লায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচি

রহমত খন্দকার পলাশ: “গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান” এই স্লোগানকে সামনে রেখে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কুমিল্লায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।   বিস্তারিত →

কুমিল্লার মুরাদনগরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আঙ্গীনায় বৃক্ষ রোপন

কুমিল্লার মুরাদনগরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আঙ্গীনায় বৃক্ষ রোপন

নিজস্ব প্রতিনিধি: “গাছ লাগান, জীবন বাচান” এই স্লোগানে কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার জাহাপুর গ্রামে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আঙ্গীনায় বৃক্ষরোপন করা হয়।   রবিবার (৩ নভেম্বর) বিস্তারিত →

কুমিল্লার চান্দিনা মহসড়কের পাশে ফেলা হচ্ছে মৃত গরু ও ময়লা আবর্জনা

কুমিল্লার চান্দিনা মহসড়কের পাশে ফেলা হচ্ছে মৃত গরু ও ময়লা আবর্জনা

আশিকুর রহমান আশিক: চান্দিনা পৌরসভা এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ফেলা হচ্ছে মৃত গরু ও ময়লা আবর্জনা। এই মহাসড়ক দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানের মানুষের এই আসাযাওয়া, বিস্তারিত →

কুমিল্লায় কাল-বৈশাখীর ঝড়ে গাছ ভেঙ্গে পরে নিহত ১

কুমিল্লায় কাল-বৈশাখীর ঝড়ে গাছ ভেঙ্গে পরে নিহত ১

  স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লায় বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের কালিকাপুর মধ্যপাড়া গ্রামে কাল-বৈশাখীর ঝরে গাছ ভেঙ্গে পরে রোকেয়া বেগম (৩৮) নামে ৫ সন্তানের জননী নিহত হয়েছেন। বিস্তারিত →

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

সর্বশেষ খবর

Archives

SatSunMonTueWedThuFri
1234567
15161718192021
22232425262728
293031    
       
    123
45678910
25262728293031
       
  12345
27282930   
       
29      
       
      1
       
    123
18192021222324
       
      1
16171819202122
30      
     12
       
    123
       
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
30      
     12
       
    123
25262728   
       
      1
2345678
9101112131415
3031     
      1
30      
   1234
567891011